Archive

Category Archives for "ছোট গল্প"
5

লাল গোলাপের গল্প

  মহিলা ক্রিশ্চিয়ান। মিস ডোনা এলিজাবেথ নামে চেনে সবাই। বিয়ে করেননি মনে হয়, বছর পঞ্চাশের মতো বয়স হবে। একাই থাকেন একতলা বাড়িতে। সাথে হয়ত চাকর আছে একজন৷ সেও বেশ বয়স্ক। আমি তখন স্কুলে পড়ি৷ দেয়াল ঘেরা মিস ডোনার বাড়িটা বেশ লাগতো দেখতে। বাড়িটা ওনার ছিল কিনা ঠিক মনে নেই। শুধু মনে আছে বাড়ির সামনে একটা […]

বিস্তারিত
2

বিষাদ 

  আমি এসেছি একটা বিয়েবাড়িতে। নাহ, ঠিক বিয়ে বাড়ি বলা এখন ঠিক না, কমিউনিটি সেন্টার । শহরে বিয়ে বাড়ির উৎসবের আমেজ এখন কমিউনিটি সেন্টারে সীমাবদ্ধ। দুয়েকদিন বাসায় গেস্ট থাকলেও রিসিপশনের পরের দিন বলতে গেলে বাসা ফাঁকা হয়ে যায়। অথচ আমাদের ছোটবেলায় বিয়ে মানে একমাস ধরে বাড়িতে মেহমান থাকবে। খালা, মামা, ফুপু, চাচীরা বাড়ি ভরা থাকবেন […]

বিস্তারিত
4

বারান্দার গল্প

  ভাতটা চুলায় বসিয়ে দিয়ে বারান্দায় এসে দাড়ায় তমা। আজ বেশি কিছু রান্নার নেই। ডাল রান্না হয়ে গিয়েছে, শুধু তেলে ফোড়ন দিতে হবে। ভাতের মধ্যে দুটো মাঝারি সাইজের আলু দিয়েছে, সবুজ আলুভর্তা খুব বেশি একটা খায় না। কাঁচামরিচ পেয়াজ কাটা আছে, খেতে বসার আগে দুজনের জন্য একটা ডিম ভেজে নিলেই হবে। বৃষ্টি আসবে হয়তো, আকাশে […]

বিস্তারিত

ভালোবাসার গল্প

  সালেক মিয়া জ্বর হয়ে দুই দিন ধরে কাজে যেতে পারছে না৷ সে রিক্সা চালায়, কাজে না গেলে ইনকাম বন্ধ, খাওয়াও জুটবে না!! ক্ষুধায় কাহিল লাগছে। সকালে কাজে যাওয়ার সময় সুফিয়া উকি দিয়ে দেখে গেছে। সে পাঁচ বাসায় ছুটা কাজ করে, রান্না করে দেবার সময় নাই ! আর যে মেজাজ, চটাং চটাং করে কথা বলে […]

বিস্তারিত

ফেরা

  শুভমিতা যখন রায়চৌধুরী বাড়ির সামনে এসে দাড়ায়, তখন দুপুরের রোদের তেজ কমেছে। বাড়িটা জরাজীর্ণ হয়ে গিয়েছে একেবারেই। শুভমিতার পূর্বপুরুষদের বাড়ি, শুভমিতার বুকের মধ্যে একটা কাঁপন লাগে, কোথাও যেন একটা চিনচিনে ব্যাথা নাড়া দেয়। বাড়ির সামনে সাইনবোর্ড লাগানো ‘বাহাউদ্দীন ম্যানসন’। পাথরে খোদাই করা ‘রায়চৌধুরী বাড়ি’ এর উপর জোর করে বসানো হয়েছে যেন। বাড়ির সামনের গেটটা […]

বিস্তারিত